Home ইতিহাস বালিশ উত্তোলনের ইতিহাস

বালিশ উত্তোলনের ইতিহাস

কি শুনে হাসি পায়! বালিশ উত্তোলনেও আমাদের আছে হাজার বছরের ঐতিহ্য। আমার অনেক প্রিয় লেখকদের একজন Simu Naser। তিনি তাঁর ফেসবুক পোস্টে নতুন চাকরিতে যুক্ত হওয়ার কথা লিখলেন। আমি অবাক হলাম। রস আলোর এই নন্দিত লেখক তবে কি তাঁর মূল জায়গা ছাড়ছেন, নাকি নিছক ইয়ার্কি করছেন আমাদের সঙ্গে। অনেক মন খারাপ করে তার লেখাটা পড়তে গিয়ে অজান্তেই আদন্তমূল বিকশিত করে হেসে উঠলাম। উনি চাকরি হিসেবে লিখেছেন ‘Started New Job at Ruppur Nuclear Power Station’, May 17 — শিক্ষানবিশ বালিশ উত্তোলক। আমার আর বুঝতে বাকি থাকল না ইয়ার্কির প্রতিষ্ঠাতা কিভাবে আমাদের সঙ্গে ইয়ার্কি করেছেন। অন্য কারো মত বিরক্ত না হয়ে আমি চিন্তায় পড়ে যাই এ বালিশ নিয়ে ইতিহাস কি বলছে।

মোগলদের বিম্ব বালিশ

মনে পড়ে অ্যালেক্স রাদারফোর্ডের বিখ্যাত ‘A Teardrop on the Cheek of Time: The Story of the Taj Mahal’ গ্রন্থটি অনুবাদের কথা। তখন জানতে পেরেছি মোগল মহলে কি অসাধারণ সব বালিশ ব্যবহার করা হতো। তবে ইতিহাসের প্রাচীনত্বের বিচারে এই বালিশ তো সেদিনের। কারণ প্রথম বালিশের যে নিদর্শন আবিষ্কার করা হয়েছে সেটা প্রাচীর পাথর যুগ সমকালের। কেউ কেউ বলেন গরিলা কিংবা শিম্পাঞ্জীরা যেভাবে হাত মাথার নিচে দিয়ে ঘুমায়, সেটা থেকে মানুষের বালিশ তৈরির ধারণা মাথায় আসতে পারে। [১.] বালিশ ব্যবহারের পূর্বে মানুষ তার ঘুমানোর আগে কাঠ কিংবা হাড়ের টুকরো তার মাথার নিচে বালিশ হিসেবে ব্যবহার করেছে। [২.] পাশাপাশি আমরা অনেকের পোষা কুকুরকে যেভাবে বালিশ ব্যবহার দেখি সেটাও এক অর্থে মানুষের সাংস্কৃতিক অর্জন সম্পর্কিত।

হাতই যাদের বালিশ

ন্যাশনাল জিওগ্রাফিকের একটা ডকুমেন্টারি থেকে জেনেছিলাম ৫-২৩ মিলিয়ন বছর আগের আদিমানবরা তাদের ঘুমানোর জন্য গাছের উপর মাচা তৈরি করেছিল। এই মাচাতে তাদের ঘুমকে আরও শান্তিদায়ক করতে গাছের ডালের উপর নরম পাতা পেঁচিয়ে বালিশের মত তৈরি করা হয়েছিল। পরে জাতি-প্রত্নতাত্ত্বিক গবেষণা করে অনেক গবেষক দেখিয়েছেন শিম্পাঞ্জীদের মধ্যে যারা ৮-১২ ঘণ্টা ঘুমিয়ে পার করে তারা মাথার নিচে বালিশের মত বস্তু ব্যবহার করে।

মানুষের ব্যবহৃত প্রথম বালিশের নিদর্শন হিসেবে মনে করে যায় যীশুর জন্মের প্রায় ৭০০০ বছর আগে মেসোপটেমিয়া থেকে প্রাপ্ত বালিশটিকে। [৩.] গবেষকদের ধারণা তখনকার সময়ে শুধুমাত্র ধনী এবং অভিজাতরাই বালিশ ব্যবহার করেছেন। এই বালিশের সংখ্যা এবং চাকচিক্যের উপর ক্ষেত্রবিশেষে মানুষের সামাজিক মর্যাদাও নির্ভর করত। তবে প্রত্নতাত্ত্বিক গবেষকদের ধারণা ঘুমের সময় ঘাড়ের ব্যথার মত সমস্যা এড়াতে মানুষ প্রথম নানা ধরণের বালিশ ব্যবহার করেছেন। [৪]

কাঠের তৈরি মিসরীয় বালিশ

কায়রো জাদুঘরে রক্ষিত বায়ুদেবতার বালিশ

প্রাচীন মিসরের মমিতেও অনেক ধরণের বালিশ ব্যবহার করতে দেখা যায়। বিশেষত, ১১ তম রাজবংশীয় শাসনের সময়কাল থেকে (২০৫৫-১৯৮৫ খ্রি. পূ) মিসরের মানুষ বালিশ ব্যবহার আয়ত্ব করে। তখনকার দিনে মানুষ বালিশ বলতে যা বুঝতো সেটা এখনকার মত বস্তায় ভরা তুলোর পিণ্ড নয়। তখন মিসরীয়রা বালিশ তৈরিতে কাঠ এবং পাথরকে গুরুত্ব দিয়েছে বেশি। এটা তারা ঘুমের সময় নানাবিধ শরীরবৃত্তীয় জটিলতা এড়াতে করেছে। বিশেষ করে প্রাচীন মিসরের চিকিৎসা বিজ্ঞানের উৎকর্ষ মানুষকে বালিশ ব্যবহারে উদ্বুদ্ধ করেছিল। [৫]

চীনের পোর্সেলিন বালিশ

অন্যদিকে ইউরোপের মানুষ বালিশের ব্যবহার আয়ত্ব করেছিল আরও পরে। শুধু ঘুমানো নয় তারা পবিত্র গ্রন্থ পাঠ কিংবা স্রষ্টার আরাধনা করার ক্ষেত্রেও বালিশের ব্যবহার করেছে। [৬] তাদের এই কর্মকাণ্ডের ধারাবাহিকতা এখনও অনেক দেশে লক্ষ করা যায়। অন্যদিকে চীনের মানুষ বাঁশ থেকে শুরু করে জেড পাথর, পোর্সেলিন এমনকি সোনার তৈরি বালিশও ব্যবহার করেছে। ১০-১৪ শতকের দিকে চীনের বালিশ শিল্প তাদের চূড়ান্ত উৎকর্ষ অর্জন করছিল। [৭.]

বালিশ বগলে বৌদ্ধ মূর্তি

মহামতি গৌতম বুদ্ধের শায়নমুদ্রার মূর্তিগুলো বিশ্লেণ করতে গেলে দেখা যায় সেখানেও তাঁর মাথার নিচে বালিশ আছে। আমি কান্তজিউর মন্দিরের টেরাকোটা ফলকেও বালিশ দেখেছি। মথুরাপুর দেউল কিংবা কোদলা মঠের অলঙ্করণ থেকেও বাদ পড়েনি এই বালিশ। বালিশ ব্যবহার ও উত্তোলনের এই সমৃদ্ধ ইতিহাস পড়ার পর রূপপুর পরামাণুকেন্দ্রের বালিশ নিয়ে হাসাহাসি বন্ধ করুন। মনে রাখবেন বালিশও মানব জাতির হাজার বছরের ঐতিহ্য।

সহায়ক সূত্র

[১].Crickette M. Sanz; Josep Call; Christophe Boesch (7 March 2013). Tool Use in Animals: Cognition and Ecology. Cambridge University Press. p. 184
[২].”Chimpanzees Make Beds That Offer Them Best Night’s Sleep”. National Geographic News. 2014-04-18. Retrieved 2019-03-30.
[৩].Levy, Joel (2002). Really Useful: The Origins of Everyday Things. Buffalo, NY: Firefly.
[৪].Soane, Ely Banister (2007). To Mesopotamia and Kurdistan In Disguise. Cosmino, Inc. p. 13.
[৫]Seath, J.; A.P. Gize; A.R. David; K. Hall; P. Lythgoe; R. Speak; S. Caldwell (April 2006). “An atypical Ancient Egyptian pillow from Sedment el-Gebel: evidence for migrant worker trading and technology”. Journal of Archaeological Science. 33 (4): 546–550.
[৬].Smith, William (1875). A Dictionary of Greek and Roman Antiquities. London: John Murray. pp. 456, 472, 473.
[৭].”Porcelain Pillows”. chinaculture.org. Retrieved 2019-04-30.

Dr. Md. Adnan Arif Salimhttp://salimaurnab.com/
জন্ম ১৯৮৯ সালের ১ নভেম্বর কুষ্টিয়াতে। পাবনার পাকশীতে পৈত্রিক নিবাস। পিতা মরহুম আরিফ যুবায়ের এবং মা সেলিনা সুলতানা। বর্তমানে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপেন স্কুলে ইতিহাসের শিক্ষক হিসেবে কর্মরত। পাবনা জেলার পাকশীর নর্থ বেঙ্গল পেপার মিলস হাইস্কুল থেকে মাধ্যমিক ও কুষ্টিয়া সরকারি কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক শেষ করে ২০০৭ সালে ভর্তি হন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে। ২০১১ সালে স্নাতক সম্মানে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম স্থান অধিকার করে উত্তীর্ণ হন। এর পরের বছর ঐ একই বিভাগ থেকে স্নাতকোত্তরের পাঠ শেষ করেন। স্কুল পর্যায় থেকে নানা ধরণের লেখালিখি ও অনুবাদ কর্মের সঙ্গে যুক্ত থাকলেও নন্দিত ইতিহাস গবেষক অধ্যাপক এ কে এম শাহনাওয়াজের গবেষণা সহকারী হিসেবে প্রথম ইতিহাস বিষয়ক লেখা শুরু করেন। পরবর্তীকালে এই একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি গবেষণা শেষ করেন। পাশাপাশি লিখেছেন বেশ কয়েকটি বৈষয়িক গ্রন্থ। একক কিংবা সহলেখক হিসেবে তার প্রকাশিত গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে ইতিহাস ও ঐতিহাসিক, বাংলাদেশের ইতিহাস ও জাতিসত্তার বিকাশ, আধুনিক ইউরোপের ইতিহাস (১৪৫৩-১৭৭৯ খ্রি.) আধুনিক ইউরোপের ইতিহাস (১৭৮৯-১৯৪৫ খ্রি.), গুপ্তগোষ্ঠী ফ্রিম্যাসনারির কথা, গুপ্তগোষ্ঠী ইলুমিনাতি, বাংলাদেশের সমাজতত্ত্ব, প্রত্নচর্চায় বাংলাদেশ, জেরুজালেম, তাজমহলের গল্প, হালাকু খান, শের শাহ, পিরামিড প্রভৃতি। সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে তার ইতিহাসচর্চায় ভূগোল শীর্ষক গ্রন্থটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Your Rating:05

Thanks for submitting your comment!

Must Read

তোমরা যারা ডেথ রেস খেলো

১. কিছুদিন আগে আমার সাথে দুইজন ছাত্রী দেখা করতে এসেছে। রাগে দুঃখে ক্ষোভে তাদের হাউমাউ করে কাঁদার মত অবস্থা, কিন্তু বড় হয়ে গেছে বলে সেটি...

কোথাও কেউ নেই

গ্রামবাংলার একটি জনপ্রিয় প্রবচন হচ্ছে, ‘মানুষের ভাগ্য আর লুঙ্গি বড়ই অদ্ভুত, এর কোনটা কখন খুলে যায় বলা কঠিন।’ ভাগ্য খোলা আসলে অনেক বড় কিছু,...

যে ‘দিদি’ এবং ‘ভাই’ আমাদের ভাবায়

জয়দেবপুর রেল জংশন থেকে সেই সুনামগঞ্জ কতটা পথ! সড়ক যোগাযোগের কথা বাদ দেয়া যাক। সরাসরি রেলপথেও সেখানে যাওয়ার সুযোগ কম। তবু শয়নে-স্বপনে নয়, যাপিত...

বাংলার মধ্যযুগ চর্চার পথিকৃৎ

আজ বাংলার ইতিহাসের কিংবদন্তী গবেষক, প্রখ্যাত লেখক, মধ্যযুগের বাংলার মুদ্রা ও শিলালিপি বিশেষজ্ঞ এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবদুল করিমের মৃত্যুদিবস। শুরুতেই...

বালিশ উত্তোলনের ইতিহাস

কি শুনে হাসি পায়! বালিশ উত্তোলনেও আমাদের আছে হাজার বছরের ঐতিহ্য। আমার অনেক প্রিয় লেখকদের একজন Simu Naser। তিনি তাঁর ফেসবুক পোস্টে নতুন চাকরিতে...