কোথাও কেউ নেই

গ্রামবাংলার একটি জনপ্রিয় প্রবচন হচ্ছে, ‘মানুষের ভাগ্য আর লুঙ্গি বড়ই অদ্ভুত, এর কোনটা কখন খুলে যায় বলা কঠিন।’ ভাগ্য খোলা আসলে অনেক বড় কিছু, নিম্নবিত্ত কিংবা মধ্যবিত্তের জীবনে সেটা সচরাচর ঘটে না। ফলে দ্বিতীয়টির খুলে যাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায় বহুগুণে। লুঙ্গি খুলে গেলেও আড়ালে মুখ লুকিয়ে মুচকি হাসার মতো কিছু ঘটেনি। নতুন মাড় দেয়া লুঙ্গির ভাঁজ খুলেছে আমার ছোট ভাই। আর ভাঁজ খোলার পর দুজনেরই চক্ষু চড়কগাছ। রাতদুপুরে তাড়াহুড়ো করে লুঙ্গিটা কেনা হয়েছিল। ধবধবে সাদা বসনের পাশাপাশি গলায় পৈতা-কপালে চন্দনের ছাপ আর কাশফুলের মতো পাকা চুল দেখে বিভ্রান্ত হয়ে কিনা…

Read More

যে ‘দিদি’ এবং ‘ভাই’ আমাদের ভাবায়

জয়দেবপুর রেল জংশন থেকে সেই সুনামগঞ্জ কতটা পথ! সড়ক যোগাযোগের কথা বাদ দেয়া যাক। সরাসরি রেলপথেও সেখানে যাওয়ার সুযোগ কম। তবু শয়নে-স্বপনে নয়, যাপিত জীবনেই এমন কিছু ঘটনা ঘটে যায়, যা জয়দেবপুর ও সুনামগঞ্জের ভৌগোলিক সীমারেখা এক করে দেয়। আর অদ্ভুতভাবে দুটি ঘটনাই ঘটেছে ফুটপাতে। প্রথমোক্ত ঘটনাটি মাত্র সপ্তাহখানেক আগের। ইতিহাসের অনার্স প্রোগ্রামের ক্লাস নিয়ে বাউবির ঢাকা কেন্দ্র থেকে জয়দেবপুর ফিরছি ক্লান্ত হয়ে। বাস-বাইক-রেল তিন ধরনের বাহনে যাতায়াত করে অনেকটাই ত্রিশঙ্কুতে পড়েছি। দ্রুত বাসায় ফেরার তাড়া থাকায় থানা রোডের মুখের যানজট এড়িয়ে মন্দিরের ভেতর দিয়ে হাঁটতে থাকি। অনেকটা অস্বাভাবিকভাবে জনৈক…

Read More

বাংলার মধ্যযুগ চর্চার পথিকৃৎ

আজ বাংলার ইতিহাসের কিংবদন্তী গবেষক, প্রখ্যাত লেখক, মধ্যযুগের বাংলার মুদ্রা ও শিলালিপি বিশেষজ্ঞ এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবদুল করিমের মৃত্যুদিবস। শুরুতেই মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দরবারে মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি। বাংলার ইতিহাস গবেষণার সঙ্গে যুক্ত থেকে যাঁরা নিজেই ইতিহাস হয়ে গেছেন তাঁদের মধ্যে অন্যতম অধ্যাপক আবদুল করিম। আমার গবেষণা তত্ত্বাবধায়ক, শিক্ষাগুরু এবং ইতিহাস-প্রত্নতত্ত্ব চর্চার অভিভাবক অধ্যাপক এ কে এম শাহনাওয়াজ স্যারের কাছে শুনেছি তাঁর কথা। বাংলার ইতিহাস গবেষণার এই বটবৃক্ষের ছায়াতলে আশ্রয় নেয়ার সুযোগ হয়েছিল শাহনাওয়াজ স্যারের। বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের দ্বিতীয় বর্ষ থেকে শুরু করে আজ অবধি…

Read More